খালেদা জিয়ার মুক্তি, এরপর অন্য বিষয়ে আলোচনা : মির্জা ফখরুল

বিডি নিউজ আই,  ডেস্ক: গণতান্ত্রিক প্রতিষ্ঠানগুলোকে ধ্বংস করে দেশে গণতন্ত্রের কবর রচনা করা হয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। আজ শুক্রবার দুপুরে ‘খালেদা জিয়ার মুক্তি ও গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠার সংগ্রাম’ শীর্ষক আলোচনা সভায় তিনি এ মন্তব্য করেন।

সভায় বিএনপি মহাসচিব বলেন, ‘আমাদের এক নম্বর শর্ত হলো বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি। তাকে মুক্ত করতে হবে। এরপর অন্য বিষয়ে আলোচনা হতে পারে’।

সরকার নিজেই দুর্নীতি করতে করতে সীমা ছাড়িয়ে গেছে মন্তব্য করে ফখরুল বলেন, বাংলাদেশ কঠিন সময় পার করছে। এর চেয়ে দুঃসময় দেশে আর আসেনি। এ সরকার ব্যাংক লুট করেছে। শেয়ারবাজার ধ্বংস করেছে। গণতন্ত্র ধ্বংস করে দিয়েছে। সুন্দরবন ধ্বংস করে দিচ্ছে। এরা মানুষের কথা বলার অধিকার, ধর্মীয় অধিকার কেড়ে নিয়েছে। এরা মানুষকে পুতুল বানাতে চাচ্ছে। এ সরকার একটি পুরোপুরি স্বৈরাচারী সরকার। জার্মানের গবেষণা এবং বিবিসি তা বলছে। এ সরকার মানুষকে বিভ্রান্ত করছে। দল ভাঙার চেষ্টা করছে। বিরোধী দল ধ্বংস করে দিতে চায়।

এই দুঃসময় শুধু বিএনপি বা খালেদা জিয়ার নয়; এটি গোটা জাতির দুঃসময়। তাই সবাইকে এক হয়ে কাজ করতে হবে; অপশাসনের পতন ঘটাতে হবে,’ বলেন মির্জা ফখরুল।

জাগপা আয়োজিত সভায় সভাপতিত্ব করেন দলটির সভাপতি অধ্যাপিকা রেহানা প্রধান। বক্তব্য রাখেন জাগপার বিভিন্ন পর্যায়ের নেতৃবৃন্দ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *