ইংলিশ ফুটবলারদের করমর্দনে নিষেধাজ্ঞা

খেলার শুরু অথবা শেষে বা খেলা চলাকালে কোনো বিশেষ মুহূর্তে দুই দলের ফুটবলারদের করমর্দন দৃশ্য প্রায়শই দেখা যায়। কিন্তু সুইডেনের সঙ্গে মাঠে নামার আগেই প্রকাশিত হলো সেই চাঞ্চল্যকর সংবাদ।

ব্রিটেনের ডেইলি মিরর এক প্রতিবেদনে দাবি করেছে, ইংল্যান্ড টিমের ফুটবলার থেকে শুরু করে ম্যানেজার- প্রত্যেকের কাছেই নির্দেশ দেয়া হয়েছে, বিপক্ষের কোনো প্রতিনিধির সঙ্গে যেন করমর্দন না করা হয়। কিন্তু কী কারণে এই নির্দেশ?

১৯৬৬ সালে জার্মানিকে হারিয়ে বিজয়ী খেতাব দখল করেছিল ইংল্যান্ড। তবে এবারের বিশ্বকাপে ইংল্যান্ডের নবীন ফুটবলাররা অনেকটাই আশা জাগাচ্ছেন বলে মনে করেন ফুটবল বিশেষজ্ঞরা। আজ শনিবারের কোয়ার্টার ফাইনালে সুইডেনের মুখোমুখি হওয়ার পর সেমিফাইনালেও যে ইংল্যান্ডকে খেলতে দেখা যাবে, সে বিষয়ে যথেষ্ট আশাবাদী তারা। তাই দলের কোনো ফুটবলার যাতে জীবাণুঘটিত রোগে আক্রান্ত না পড়েন, সে দিকে কড়া নজর রয়েছে।

ওই প্রতিবেদনটিতে দাবি করা হয়েছে- হাত খুলে করমর্দন করার থেকে ফুটবলাররা বেছে নিন মুষ্টিবদ্ধ হাতে শুভেচ্ছা বিনিময়ের পথকে। এমনটাই নাকি পরামর্শ দিয়েছেন লন্ডনের ইনস্টিটিউট অব বায়োলজিক্যাল, এনভায়রনমেন্টাল অ্যান্ড রুরাল সায়েন্সেস-এর গবেষকরা।

তাদের পরামর্শ মতোই ইংল্যান্ড টিমের এই নতুন শুভেচ্ছা বিনিময় পদ্ধতি। কারণ খোলা হাতে করমর্দন করে জীবাণুবাহিত রোগে আক্রান্ত হলে ফাইনালে খেলবে কে?

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *