না’গঞ্জ দ্বিতীয় বিভাগ ক্রিকেট লীগ শীতলক্ষ্যা জয়ের ধারায় ফিরেছে

Share this...
Print this pageShare on FacebookShare on Google+Tweet about this on TwitterShare on LinkedIn

স্পোর্টিস রিপোর্টার: শুরু হয়েছে চতুর্থ রাউন্ডের খেলা। এ রাউন্ডের প্রথম ম্যাচ দিয়ে শীতলক্ষ্যা ক্রিকেট একাডেমী ফিরে এসেছে জয়ের ধারায়। তারা ১৪৫ রানের বিশাল ব্যবধানে হারিয়েছে তৌফিক সাত্তার ক্রিকেট ক্লাবকে। যারা এখনও কোন পয়েন্টের দেখা পায়নি। জেলার ক্রিকেটের অন্যতম একটি পুরনো ক্লাব তৌফিক সাত্তার ক্রিকেট ক্লাব লীগে টিকে থাকাটাই শঙ্কার মধ্যে নিপতিত হয়েছে। সামসুজ্জোহা ক্রীড়া কমপ্লেক্সের ক্রিকেট গ্রাউন্ডে দ্বিতীয় বিভাগ ক্রিকেট লীগের এ ম্যাচে তৌফিক সাত্তারের অধিনায়ক টস জিতে ব্যাট করতে পাঠালো শীতলক্ষ্যাকে। তারা সুযোগ নিল। ৪০ ওভারে ২৭০ রানের বিশাল স্কোর গড়ে তৌফিক সাত্তারকে চ্যালেঞ্জ দিল। যাও এ রান টপকালে জিতবে তোমরা! জেতা দূরে থাক সর্ব সাকুল্যে তারা করলো ১২৫ রান। তখনও ওভার বাকি ছিল ৯.১। শীতলক্ষ্যার প্রথম উইকেট পড়ে ৬৭ রানে। শাকিল ৩৪ রানে ফিরলেও সোহান জুটি বাধেন মাহদির সাথে। সোহান অউট হন ৪২ রানে। এরপর দ্রুত আরেকটি উইকেট হারায় শীতলক্ষ্যা। সাজ্জাদ ফিরেন ২ রানে। নিয়াজ আর মাহদি মিলে তৌফিকের বোলারদের উপর খড়গ নামিয়ে দেন। নিয়াজ ৬৫ বরে অপরাজিত থাকেন ৮০ রানে। ৮২ রান করেন মাহদি। হাবিবুর করেন ১৮। তৌফিক সাত্তার ক্রিকেট ক্লাবের হাসান একমাত্র বোলার যিনি ৩১ রানে পান ৪ উইকেট। জবাব দিতে গিয়ে শুরুটা খারাপ করেনি তারা। ১২ ওভার পর্যন্ত ভালই লড়াই করেছে তারা। ১৭ ওভার থেকে শুরু পতন। যা ঠেকানোর সাধ্য ছিলনা দলটির। ৩০.৫ ওভারে তারা ১২৫ এ অল আউট। রবিউল ২৫ করেন ২ ছক্কা আর ১ বাউন্ডারিতে। সিফাত ২২, সাত্তার রানআউটের আগে করেন ১৯। মামুন আউট হন ১৩ রানে। অতিরিক্ত থেকে আসে ২১ রান। শীতলক্ষ্যার জোবায়ের ৩টি এবং নিরব পান ২টি উইকেট।
সংক্ষিপ্ত স্কোরঃ শীতলক্ষ্যা ক্রিকেট একাডেমী: ৪০ ওভার (২৭০/৪) মাহদি-৮২,নিয়াজ-৮০*সোহান-৪২,শাকিল-৩৪,হাবিবুর-১৮। অতিরিক্ত-১১। হাসান- ৪/৩১।
তৌফিক সাত্তার ক্রিকেট ক্লাব : ৩০.৫ ওভার (১২৫/১০) রবিউল-২৫,সিপাত-২২,সাত্তার-১৯,মামুন-১৩ । অতিরিক্ত-২১। জোবায়ের-৩/১৬,নিরব-২/৩৪।

Share this...
Print this pageShare on FacebookShare on Google+Tweet about this on TwitterShare on LinkedIn

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *