কারাগার থেকে বাসায় আসিফ

Share this...
Print this pageShare on FacebookShare on Google+Tweet about this on TwitterShare on LinkedIn

তথ্যপ্রযুক্তি আইনে করা মামলায় কণ্ঠশিল্পী আসিফ আকবর কারাগার থেকে জামিনে মুক্তি পেয়ে বাসায় ফিরেছেন।

সোমবার বিকাল ৪টায় কেরানীগঞ্জে ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগার থেকে জামিনে মুক্তি পান জনপ্রিয় এ শিল্পী।

কেন্দ্রীয় কারাগারের সিনিয়র জেল সুপার জাহাঙ্গীর কবির ও আসিফের আইনজীবী ওমর ফারুক এ বিষয়ে সাংবাদিকদের নিশ্চিত করেছেন।

এর আগে আজ দুপুরে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি (আইসিটি) আইনে গীতিকার, সুরকার ও গায়ক শফিক তুহিনের করা মামলায় ১০ হাজার টাকা মুচলেকা দিয়ে জামিন পান সংগীতশিল্পী আসিফ আকবর।

সোমবার ঢাকা মহানগর হাকিম কেশব রায় তার জামিন আবেদন মঞ্জুর করে এ আদেশ দেন। মামলায় পুলিশ প্রতিবেদন দাখিল করার আগ পর্যন্ত এ জামিন বহাল থাকবে বলে জানা গেছে।

সকালে আদালতে তার আইনজীবী জামিনের আবেদন করেন। পরে জামিন আবেদনে শুনানি শেষে আদালত জামিন মঞ্জুর করেন।

উল্লেখ্য, গত মঙ্গলবার দিবাগত রাত দেড়টার দিকে অপরাধ তদন্ত বিভাগের (সিআইডি) একটি দল আসিফকে তার অফিস থেকে গ্রেফতার করে। এরপর থেকে অনেকটাই উত্তাল সংগীতাঙ্গন। বিষয়টি নিয়ে অনেকের নানা মতামত ছড়িয়ে পড়েছে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে।

Share this...
Print this pageShare on FacebookShare on Google+Tweet about this on TwitterShare on LinkedIn

আমি তাদের কাউকে ছাড়ব না

Share this...
Print this pageShare on FacebookShare on Google+Tweet about this on TwitterShare on LinkedIn

আমার সাথে যা হয়েছে, আমি গত ৬ মাস ধরে চুপ ছিলাম… সবাই জিজ্ঞেস করে যাচ্ছে মিলা মেয়েটা কি হারিয়ে গেল…?
সবাই অবাক হবে যখন জানতে পারবে আমার সাথে কি করা হয়েছে, একটা মামলার জন্য আমাকে আর Read the rest of this entry »

Share this...
Print this pageShare on FacebookShare on Google+Tweet about this on TwitterShare on LinkedIn

‘মুখ ও মুখোশ’ নিয়ে কিছু কথা

Share this...
Print this pageShare on FacebookShare on Google+Tweet about this on TwitterShare on LinkedIn

রনজিৎ মোদক : আবদুল জব্বার খান বিশিষ্ট চলচ্চিত্র নির্মাতা, অভিনেতা, নাট্যকার ও চলচ্চিত্র পরিচালক। বাংলাদেশে Read the rest of this entry »

Share this...
Print this pageShare on FacebookShare on Google+Tweet about this on TwitterShare on LinkedIn

স্বপ্নের মেয়াদোত্তীর্ণ হওয়ার কোনো তারিখ নেই

Share this...
Print this pageShare on FacebookShare on Google+Tweet about this on TwitterShare on LinkedIn

আপনি যদি আপনার হৃদয়ের কথা না শুনেন তাহলে বাকি জীবনটা আপসোস করে কাটাতে হবে। হৃদয় যা চায় Read the rest of this entry »

Share this...
Print this pageShare on FacebookShare on Google+Tweet about this on TwitterShare on LinkedIn

রণবীর দীপিকা কি সুইজারল্যান্ডেই বিয়ে করছেন ?

Share this...
Print this pageShare on FacebookShare on Google+Tweet about this on TwitterShare on LinkedIn

রণবীর ও দীপিকা’র দুই পরিবার একসঙ্গে বসে এ বছর শেষের দিকে তাদের বিয়ে ঠিক করেছেন। কিন্তু শেষ অবদি বিয়েটা কোথায় হবে তা জানা যায়নি।

টাইমস অব ইন্ডিয়া সূত্রে জানা গেছে, অতি সম্প্রতি সুইজারল্যান্ডের পর্যটন বিভাগের ব্র্যান্ড অ্যাম্বেসেডর হয়েছেন রণবীর সিং।

আর সে দেশের পর্যটন বিভাগের আধিকারিকরা চাইছেন ছবির মতো এই দেশটিতেই বিয়ে করুক বলিউডের জনপ্রিয় জুটি রণবীর সিং দীপিকা পাড়ুকোন । ইতিমধ্যেই ‘গুল্লি বয়’কে তারা এই প্রস্তাব দিয়েছেন।

এই প্রস্তাব আসার পর বলিউডে জোর গুঞ্জন শুরু হয়েছে, তবে কি বিরাট-আনুশকার মতোই এই জুটিও শেষ অবদি ইউরোপেই বিয়ে করবেন?

এই প্রশ্নের অবশ্য উত্তর এখনো জানা যায়নি। সুইজারল্যান্ডের পর্যটন বিভাগকে রণবীর এখনো কিছু জানাননি।

রণবীর-দীপিকার সম্পর্ক নিয়ে দীর্ঘদিন ধরেই বলিউডে নানান আলোচনা চলছে। সব ঠিকঠাক থাকলে এ বছরের সেপ্টেম্বর থেকে ডিসেম্বরের মধ্যেই বিয়ে করবেন বলিউডের সুপারস্টার এই জুটি।

২০১৩ সালে সঞ্জয় লীলা বনসালির ‘গোলিও কি রাসলীলা: রামলীলা’তে প্রথম জুটি বাঁধেন এই দুই বলিউডি তারকা, তারপর ২০১৫তে মুক্তি পায় তাদের সাড়াজাগানো সিনেমা ‘বাজিরাও মাস্তানি’।

২৫ জানুয়ারি মুক্তিপ্রাপ্ত সঞ্জয়ের বিতর্কিত ছবি ‘পদ্মাবত’-এ এই জুটির অনবদ্য অভিনয় আবার আলোচনায় আসে।

Share this...
Print this pageShare on FacebookShare on Google+Tweet about this on TwitterShare on LinkedIn

“আমার জীবনের স্মৃতি হয়ে থাকবে এ ফিল্মটি ।”

Share this...
Print this pageShare on FacebookShare on Google+Tweet about this on TwitterShare on LinkedIn

Share this...
Print this pageShare on FacebookShare on Google+Tweet about this on TwitterShare on LinkedIn

হিন্দু সেলিব্রিটিদের বিয়ে করেছেন যেসব মুসলিম সুন্দরী

Share this...
Print this pageShare on FacebookShare on Google+Tweet about this on TwitterShare on LinkedIn

বলিউডে তারকাদের প্রেম, বিয়ে, ব্যক্তিগত জীবন, পোশাক-পরিচ্ছদ নিয়ে অনেক আলোচনা-সমালোচনা হয়ে থাকে। তবে সিনেমা ইন্ডাস্ট্রিতে এমন কয়েকজন সেলিব্রিটি আছেন যারা inter caste marriage করেছেন। অর্থাৎ, যারা বিয়ে করার সময় কোনো জাতি ধর্ম দেখেননি। ভারতে inter caste marriage কে এখনো ভালো চোখে দেখা হয় না। তার মধ্যে যদি হিন্দু-মুসলিমের বিবাহের কথা আসে তাহলে ব্যাপারটা আরও জটিল হয়ে যায়। তবে এ সব কিছু উপেক্ষা করে বলিউডে এমন অনেক সেলিব্রিটি আছেন যারা মুসলিম হয়ে হিন্দু অভিনেতাকে বিয়ে করেছেন। তবে আর দেরি না করে চলুন জেনে নেই সেই দম্পতিগুলো সম্পর্কে।

১. মনোজ বাজপেয়ি-শাবানা রাজ
বলিউডের খুব জনপ্রিয় অভিনেতা মনোজ বাজপেয়ি অভিনেত্রী শাবানা রাজকে ২০০৩ সালে বিয়ে করেন। তারা কোনোদিন নিজেদের ব্যক্তিগত জীবনকে ক্যামেরার সামনে আসতে দেননি। তারা একে অপরের সাথে পাঁচ বছর ধরে প্রেম করেন, কিন্তু তার খবর কেউ পায়নি আগে।

২. অতুল অগ্নিহোত্রী-আলবিরা খান
প্রযোজক পরিচালক-অভিনেতা অতুল অগ্নিহোত্রী এবং চলচ্চিত্র প্রযোজক, ফ্যাশন ডিজাইনার আলবিরার প্রেমের গল্প বন্ধুত্ব থেকেই শুরু হয়। কথা বলতে বলতেই এনাদের মধ্যে প্রেম হয়ে যায়। পরে তারা একে অপরের সাথেই বিয়ে করেন।  প্রসঙ্গত, আলবিরা সুপারস্টার সালমান খানের বোন।

৩. সঞ্জয় দত্ত-দিলনাওয়াজ শেখ
মান্যতার আগের নাম দিলনাওয়াজ শেখ ছিল। সঞ্জয় দত্ত নিজের বাবার মতই একজন মুসলিমের প্রেমে পড়েছিলেন। মান্যতা সঞ্জয়ের থেকে কুড়ি বছরের ছোট। ২০০৮ এ তারা একে অপরের সাথে বিবাহ বন্ধনে জরিত হন।

৪. আদিত্য পাঞ্চোলি-জরিনা বহাব
আদিত্য পাঞ্চোলি এবং জারিনার ভালোবাসা শুরু হয় ১৯৮৬ সালের ‘কালং কাছে টিকা’ নামের সিনেমা থেকে। তারা তাড়াতাড়ি বিয়ে করেও নেন। পাঞ্চোলির নাম প্রায়ই কোনও মডেল বা অভিনেত্রীর সাথে জড়িত থাকতে দেখা গেছে, কিন্তু জরিনা কোনদিনই তাদের বিবাহ সম্পর্কে সেগুলোর আগুন আসতে দেয়নি। ২০১৫ তে এনাদের বিবাহ বিচ্ছেদের কথা মিডিয়াতে এসেছিল, কিন্তু জারিনা নিজের সম্পর্ককে খুব দৃঢ় ভাবে ধরে রেখেছেন।

৫. সুনীল শেট্টি-মানা শেট্টি
সুনীল শেট্টি এবং মানা শেট্টির লাভ স্টোরি খুব রোমাঞ্চকর। একটি পার্টিতে তাদের আলাপ হয়। কিন্তু তাদের প্রথম নজরেই একে অপরের প্রতি ভালোবাসা হয়নি। এই ভালোবাসা দিনের পর দিন বন্ধুত্বের সাথে বেড়েছে। কিন্তু এরা কোনোদিনই ধর্মকে নিজেদের মাঝে আসতে দেয়নি। তবে তাদের অভিভাবকদের মন জয় করতে ৯ বছর লেগেছিল।

৬. ফারাহ খান-শিরীষ কুন্দর
ফারাহ আর শিরীষের প্রেমের গল্প তো মে হুনা চলাকালীন শুরু হয়েছিল। এরা একে অপরের সাথে প্রেম করছেন এই খবরটি কোনদিনই জানা যায়নি। কিন্তু সবাই তখন অবাক হয়ে গিয়েছিল যখন তারা নিজেদের বিয়ের ঘোষণা সবার সামনে করেন।

৭. দিয়া মির্জা-সাহিল সংঘা
বলিউডের মিষ্টি অভিনেত্রী দিয়া মির্জা এবং চলচ্চিত্র নির্মাতা সাহিল সংঘা অক্টোবর ২০১৪ সালে বিয়ে করেছিলেন। এমনিতেই সাহিল দিয়াকে ২০০৯ থেকেই জানত। কিন্তু ২০১৪ সালে তিনি দিয়াকে প্রপোজ করেন। এই প্রপোজালটাও খুব মজাদার ছিল। সাহিল নিউ ইয়র্কের ব্রিজে নিজের হাঁটু গেড়ে বসে দিয়া কে প্রপোজ করেছিল। আর দিয়া যখন বিয়ের জন্য হ্যাঁ বলেছিল তখন সেখানকার আশপাশের সমস্ত পর্যটকরা করতালি বাজিয়েছিল।

৮. বহীদা রহমান-কমলজিৎ সিং
অভিনেতা কলমজিৎ সবুজ সিনেমা চলাকালীন বহীদা রহমানের প্রেমে পড়ে যান কিন্তু তখন বহীদা গুরু দত্ত কে ভালোবাসতেন। যাইহোক, সিনেমার ১০ বছর পূর্ণ হওয়ার পর তারা একে অপরের সাথে বিয়ে করেন।

৯. নার্গিস-সুনীল দত্ত
নার্গিস-সুনীল দত্তর গল্পটা পুরোপুরি ভিন্ন। ‘মাদার ইন্ডিয়া’র মতন সিনেমায় মা এর রোলে নার্গিস এবং ছেলের রোলে সুনীল দত্ত অভিনয় করেছিলেন। তা সত্বেও তারা একে অপরের প্রতি আকৃষ্ট হন। আসলে এই সিনেমার শ্যুটিং চলাকালীন একটি বীভৎস আগুনে সুনীল দত্ত নার্গিসকে বাঁচিছিলেন এবং তার ফলে এনাদের একে অপরের মন এক হয়ে যায়। আর তারা বিয়েও করেন কিন্তু এই বিয়েকে সমাজ অনেক পরে স্বীকার করেছিল।

১০. রাজ বব্বর-নাদিরা বব্বর
রাজ এবং নাদিরারো লাভ ম্যারেজ ছিল। কিন্তু বিয়ের পরও এনাদের জীবনে অনেক ওঠাপড়া এসেছিল। রাজ এবং নাদিরা থিয়েটারের সময় থেকে একে অপরকে ভালোবাসতো এবং তারা বিয়েও করে নিয়েছিল। কিন্তু রাজ সিনেমায় নামার পর একজন সফল অভিনেতা হওয়ার পর স্মিতা পাটেলের প্রতি আকৃষ্ট হন এবং তাকে বিয়ে করেন। এতে নাদিরা খুবই দুঃখিত হয়েছিল কিন্তু তা সত্বেও তিনি তার স্বামীকে ছাড়েননি। স্মিতা তাঁর প্রথম ছেলে প্রতীক বব্বরকে জন্ম দেয়ার পরই মারা যান, পরে রাজ তার প্রথম স্ত্রীর কাছে ফিরে যায়।

Share this...
Print this pageShare on FacebookShare on Google+Tweet about this on TwitterShare on LinkedIn

অভিনেত্রী অধরা’র ফেসবুক আইডি হ্যাক, অতঃপর…

Share this...
Print this pageShare on FacebookShare on Google+Tweet about this on TwitterShare on LinkedIn

‘মাতাল’ ছবির শুটিংয়ে মঙ্গলবার ব্যস্ত ছিলেন অভিনেত্রী অধরা খান। এরই মধ্যে তার ফেসবুক অ্যাকাউন্ট হ্যাক করা হয়। তারপর এদিন গভীর রাতে অভিনেত্রীর ফেসবুক অ্যাকাউন্ট থেকে বাজে একটি পোস্টও আসে। এতে তাঁর ভক্তরা বিস্মিত হয়ে যায়। সবাই নানা প্রশ্ন সহকারে মন্তব্য করতে থাকেন। তখনও অধরা জানেন না বিষয়টি।

তবে জানার পরই তৎপর হন অধরা। এরপর সারাদিন শেষ আজ বিকেলে অ্যাকাউন্টটি নিজের নিয়ন্ত্রণে আনতে সক্ষম হন তিনি। ‘বাজে’ মন্তব্য পোস্ট করার জন্য তিনি দুঃখ প্রকাশ করেছেন।

তিনি এক স্ট্যাটাসে লিখেন- হাই বলছি, আমার আইডি গতকাল হ্যাক হয়েছে । যে কোনো পোস্ট বা অপ্রিতিকর ম্যাসেজ, অবস্থা উপেক্ষা করুন দয়া করে। ধৈর্য ধরার জন্য এবং বিচার না করার জন্য আপনাকে ধন্যবাদ। আপনাদের সহযোগিতার জন্য কৃতজ্ঞ। এই ধরনের বিষয় আবার যাতে না ঘটে তা নিশ্চিত করার জন্য প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণ করা হচ্ছে।

অধরা বর্তমানে মাতাল ছবির শেষ লটের শুটিং শেষ করছেন। এই ছবিতে তাঁর বিপরীতে অভিনয় করছেন সাইমন সাদিক।

Share this...
Print this pageShare on FacebookShare on Google+Tweet about this on TwitterShare on LinkedIn