ডিএনসিসি মেয়র পদে প্রার্থী ৬ জন, নেই বিএনপি।

বিডি নিউজ আিই ডেক্স : ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) মেয়র পদের উপনির্বাচনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী ব্যবসায়ী নেতা আতিকুল ইসলামসহ ৬ জন মেয়র পদে মনোনয়ন জমা দিয়েছেন। তবে এ সিটি নির্বাচনে বিএনপির কোন প্রার্থী মনোনয়ন জমা দেন নি।

বুধবার (৩০ জানুয়ারি) এই উপনির্বাচনে মনোনয়ন পত্র দাখিলের শেষ দিন পর্যন্ত রিটার্নিং কর্মকর্তা আবুল কাশেমের কাছে এসব মেয়র প্রার্থী মনোনয়ন পত্র জমা দেন। মেয়র ছাড়া ঢাকা উত্তরে ২০টি ওয়ার্ডে কাউন্সিলর পদে ১৬৭ জন ও ছয়টি সংরক্ষিত ওয়ার্ডে ৪৫ জন নারী কাউন্সিলর প্রার্থী মনোনয়নপত্র জমা দেন। অন্যদিকে দক্ষিণের রিটার্নিং কর্মকর্তা রকিব উদ্দিন মন্ডলের কাছে ১৮ ওয়ার্ডের কাউন্সিলর পদে ১৫৮ জন ও ছয়টি সংরক্ষিত ওয়ার্ডে ২৫ জন মনোনয়নপত্র জামা দেন।

গত মঙ্গলবার আওয়ামী লীগের প্রার্থী ব্যবসায়ী নেতা আতিকুল ইসলাম উত্তরের রিটার্নিং কর্মকর্তার কাছে মনোনয়নপত্র জমা দেন। বুধবার মনোনয়নপত্র জমা দেওয়া পাঁচ জন তারা হলেন- জাতীয় পার্টি থেকে লাঙ্গল প্রতীক নিয়ে ব্যান্ড সংগীত শিল্পী শাফিন আহমেদ, ড. ফেরদৌস আহমেদ কোরেশীর প্রগতিশীল গণতান্ত্রিক দল (পিডিপি) থেকে বাঘ প্রতীকে শাহিন খান, জাতীয়তাবাদী গণতান্ত্রিক আন্দোলন (এনডিএম) থেকে হারিকেন মার্কায় ববি হাজ্জাজ, ন্যাশনাল পিপলস পার্টির (এনপিপি) আনিসুর রহমান দেওযান ও স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন নর্থ সাউথ প্রপার্টিজ লিমিটেডের চেয়ারম্যান মো. আব্দুর রহিম।

ডিএনসিসি উপনির্বাচনের তফসিল অনুযায়ী, বুধবার বিকেল ৫টা পর্যন্ত ছিল মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার শেষ সময়। রিটার্নিং কর্মকর্তা আবুল কাশেম এক ব্রিফিংয়ে সাংবাদিকদের বলেন, উত্তর সিটিতে মেয়র পদের উপনির্বাচনে অংশ নিতে ২৬ জন মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছিলেন। এর মধ্যে আগের তফসিলের ১৯ জন, নতুন করে এবার তফসিল ঘোষণার পর আরও সাত জন মনোনয়নপত্র নেন। এর মধ্যে ছয় জন জমা দিয়েছেন মনোনয়নপত্র।
তিনি জানান, ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের ছয়টি সংরক্ষিত ওয়ার্ডে প্রতিদ্বন্দিতা করতে ৪৫ জন মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। আর ২০টি ওয়ার্ডের মধ্যে দুইটি ওয়ার্ডে উপনির্বাচন ও বাকি ১৮টিতে নতুন নির্বাচন অনুষ্ঠিত হচ্ছে। এসব ওয়ার্ডে কাউন্সিলর পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে ২১৫ জন মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছিলেন। এর মধ্যে ১৬৭ জন মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। আগামী ২ ফেব্রুারি এসব মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাই করা হবে।

আবুল কাশেম জানান, বাছাই শেষে যোগ্য প্রার্থীরা আগামী ৯ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করতে পারবেন এবং ১০ ফেব্রুয়ারির আগে তারা কেউ প্রচারণা চালাতে পারবেন না।

ইসি কর্মকর্তরা জানান, উত্তরের ৫৪ ওয়ার্ডে ভোটার ২৯ লাখ ৪৮ হাজার ৫১০ জন। এর মধ্যে পুরুষ ১৫,২২,৭২৬ ও নারী ১৪,২৫,৭৮৪। ভোট কেন্দ্র ১৩৪৯, ভোটকক্ষ ৭,৫১৬। উত্তরের নতুন ১৮ ওয়ার্ডে ভোটার ৫,৭১,৬৮৪ (পুরুষ ২,৭৯,০৩৫ ও নারী ২,৮২,৬৪৯)।

দক্ষিণের ১৮ ওয়ার্ডে ভোটার ৪,৭৭,৫১০ (পুরুষ ২,৪৫,৪১৬ ও নারী ২,৩২,০৯৪); কেন্দ্র ২৩৩ ও ভোটকক্ষ ১২৪০।

উত্তরের মেয়র পদে উপ নির্বাচনের রিটার্নিং কর্মকর্তা ইসির যুগ্ম সচিব (চলতি দায়িত্ব) আবুল কাসেম ও ১২ জন সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তা রয়েছে।

দক্ষিণের ১৮ ওয়ার্ডের জন্য রিটার্নিং কর্মকর্তা ঢাকার আঞ্চলিক নির্বাচন কর্মকর্তা রকিবউদ্দিন মন্ডল ও ৬ জন সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তা নিয়োগ দেওয়া হয়েছে।

বিডি নিউজ আিই ডট কম

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *