ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন শুধু সাংবাদিকদের জন্য নয়: তথ্যমন্ত্রী

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন শুধু সাংবাদিকদের জন্য নয়, তা পুরো দেশের মানুষের জন্য বলে মন্তব্য করেছেন তথ্যমন্ত্রী হাছান মাহমুদ। রোববার দুপুর ১২টার দিকে রাজধানীর সেগুনবাগিচায় ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির (ডিআরইউ) সাগর-রুনি মিলনায়তনে আয়োজিত ‘মিট দ্য প্রেস’ অনুষ্ঠানে তিনি একথা বলেন।

সাংবাদিক দম্পত্তি সাগর-রুনি হত্যাকাণ্ডের বিচারে জোরালো পদক্ষেপ নেওয়া হবে জানিয়ে তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বলেন, এ বিষয়টির সুরাহা হওয়া প্রয়োজন। সাগর-রুনির হত্যাকারীদের শাস্তির আওতায় আনার জন্যে আমি সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের সাথে কথা বলে জোরালো পদক্ষেপ নিব।

তিনি আরো বলেন, আমি এই মন্ত্রণালয়ে নতুন। আগের তথ্যমন্ত্রীর সঙ্গে কথা বলব। সাগর ও রুনি হত্যার বিচা‌রের বিষ‌য়ে আইনমন্ত্রী এবং স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে আলোচনা কর‌ব।

দ্রুত নবম ওয়েজ বোর্ডের বাস্তবায়ন প্রসঙ্গে মন্ত্রী বলেন, গণমাধ্যমকর্মীদের জন্য নবম ওয়েজ বোর্ডের কাজ চলছে। মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা নিয়ে মন্ত্রিসভার কমিটিতে এটা আলোচনা করা হবে। আগামী ২৩ তারিখ এ বিষয়ে সাংবাদিক নেতৃবৃন্দের সঙ্গে বৈঠক হবে।

এসময় তিনি সাংবাদিকদের কল্যাণে নেওয়া সরকারের বিভিন্ন পদক্ষেপের কথা উল্লেখ করেন।

গণমাধ্যমের স্বাধীনতা প্রসঙ্গে ড. হাছান মাহমুদ বলেন, গণমাধ্যম স্বাধীনভাবে কাজ করছে। তবে আরো স্বাধীনভাবে কাজ করবে বলে আশা করি। সম্মিলিতভাবে কাজ করলে আমরা ইউরোপ-আমেরিকার গণমাধ্যমের মতো এগিয়ে যাব।

অনলাইন ও টেলিভিশন নীতিমালার আওতায় আসার কথা জানিয়ে তথ্যমন্ত্রী বলেন, বেসরকারি পর্যায়ে গণমাধ্যমে প্রসার ঘটলেও রাষ্ট্রীয় গণমাধ্যমে তেমন ব্যাপকতা আসেনি। এজন্যে ৬টি বিভাগে বিটিভির স্টেশন স্থাপন করা হবে।

নির্বাচনে বিএনপির বিপর্যয়ের কারণ জানিয়ে ড. হাছান মাহমুদ বলেন, নির্বাচনে বিএনপির বিপর্যয় নিয়ে দলটির নেতাদের বিশ্লেষণ করা উচিত। আমি মনে করি তারা জনগণের জন্যে রাজনীতি করেনি। তাদের রাজনীতি ছিলো তারেক জিয়াকে ফিরিয়ে আনা ও নির্বাচন কমিশন ঢেলে সাজানো ইত্যাদি নিয়ে।

জাতীয় সংসদে বিরোধীদল বিষয়ে তথ্যমন্ত্রী বলেন, আমরা চাই সংসদে একটি শক্তিশালী বিরোধী দল থাকুক। বিএনপি যেহেতু জনগণের রায় নিতে পারেনি তাই সেই দায়-দায়িত্ব তাদের।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *