প্রিয়া সাহার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণের প্রক্রিয়া চলছে : সেতুমন্ত্রী

বিডি নিউজ আই ঢাকা : আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, এনজিও কর্মী প্রিয়া সাহার মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্টের কাছে করা অভিযোগ দেশের ভেতরে লুকায়িত সাম্প্রদায়িক গোষ্ঠীকে উৎসাহিত করবে। তার এ ধরনের বক্তব্য দেশদ্রোহীতার শামিল।
তিনি বলেন, প্রিয়া সাহা ডোনাল্ড ট্রাম্পের কাছে যে অভিযোগ করেছেন তা কিভাবে ভিডিওয়ের মাধ্যমে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়ে গেল, তা নিয়েও প্রশ্ন উঠেছে।
সেতুমন্ত্রী কাদের বলেন, প্রিয়া সাহার বক্তব্য সম্পূর্ণ মিথ্যা, বানোয়াট, কাল্পনিক ও উদ্দেশ্য প্রণোদিত। আমরা তার এ ধরনের বক্তব্যে তীব্র প্রতিবাদ ও নিন্দা জানাই।
প্রিয়া সাহার বিরুদ্ধে কোন ধরনের ব্যবস্থা নেয়া হবে কি না সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে কাদের বলেন, তার (প্রিয়া সাহা) এ ধরনের দেশদ্রোহী বক্তব্যের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করতেই হবে। তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণের প্রক্রিয়া চলছে।
আওয়ামী লীগের বেশ কয়েকজন গুরুত্বপূর্ণ নেতা-নেত্রীর সঙ্গে বিভিন্ন অনুষ্ঠানে প্রিয়া সাহার ছবি দেখা গেছে তাদের বিষয়ে ব্যবস্থা নেয়া হবে কি-না জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘ তার সঙ্গে আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক কোন সম্পর্ক নেই। তার কোথাও আওয়ামী লীগের প্রাথমিক সদস্য পদও নেই।’
ওবায়দুল কাদের আজ দুপুরে রাজধানীর ধানমন্ডির আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার রাজনৈতিক কার্যালয়ে আগস্ট মাসের কর্মসূচী নির্ধারণ করার লক্ষ্যে দলের সম্পাদকমন্ডলীর সঙ্গে সহযোগী সংগঠন ও ঢাকা মহানগর উত্তর ও দক্ষিণ আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকদের নিয়ে যৌথসভা শেষে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এ কথা বলেন।
প্রিয়া সাহা নামের এক এনজিও কর্মী বাংলাদেশ থেকে ৩কোটি ৭০লাখ হিন্দু, বৌদ্ধ, খ্রিস্টান ধর্মাবলম্বী উধাও হয়ে গেছে বলে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের কাছে অভিযোগ করেন। তার এ অভিযোগ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে।
এ সময় আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রহমান, সাংগঠনিক সম্পাদক আহমদ হোসেন, আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম, আবু সাঈদ আল মাহমুদ স্বপন এমপি, ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ সম্পাদক সুজিত রায় নন্দী, বন ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক ইঞ্জিনিয়ার আব্দুস সবুর, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের সভাপতি আবুল হাসনাত, মহানগর উত্তর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সাদেক খান এমপিসহ সহযোগী সংগঠনের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকরা উপস্থিত ছিলেন।
আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘দেশপ্রেমিক কোন ব্যক্তিই প্রিয়া সাহার বক্তব্যের সঙ্গে একমত হবেন না। আমি হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের শীর্ষ নেতাদের সঙ্গে তার (প্রিয়া সাহা) বক্তব্য নিয়ে আলোচনা করেছি। তারাও তার বক্তব্যের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন।’
তিনি বলেন, ‘আমি এ বিষয়ে বাংলাদেশে নিযুক্ত মার্কিন রাষ্ট্রদূতের সঙ্গেও কথা বলেছি। তিনিও বলেছেন, প্রিয়া সাহার বক্তব্য সম্পূর্ণ অসত্য ও কাল্পনিক। বাংলাদেশে সর্বোচ্চ সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিরাজমান। তাই এ নিয়ে আর দ্বিধা-দ্বন্দ্বের আর কোন অবকাশ থাকতে পারে না।’
তিনি বলেন, কোন সামাজিক অনুষ্ঠানে বা ভিড়াভিড়ির মধ্যে কারো সঙ্গে তার ছবি থাকলে সেটা ভিন্ন বিষয়। এর সঙ্গে আওয়ামী লীগের কোন সম্পর্ক নেই।
উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে বিদ্রোহী প্রার্থী ও তাদের মদতদাতাদের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেয়ার বিষয়ে সেতুমন্ত্রী বলেন, আগামী ২৮ জুলাই থেকে তাদের বিরুদ্ধে কারণ দর্শানোর নোটিশ দেয়া শুরু হবে।
তিনি বলেন, এখন পর্যন্ত দু’শ অভিযোগ জমা পড়েছে। আজও অভিযোগ জমা পড়েছে। এ অভিযোগগুলো দায়িত্বপ্রাপ্ত বিভাগীয় যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক ও সাংগঠনিক সম্পাদকদের কাছে দেয়া হয়েছে। তারা এ অভিযোগগুলোর সত্যতা যাচাই করে ২৭ জুলাইয়ের মধ্যে জমা দেবে। তারপর ব্যবস্থা নেয়া হবে।
বন্যার ত্রাণ তৎপরতা সম্পর্কে সেতুমন্ত্রী বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশনা অনুযায়ী বন্যার ত্রাণ কার্যক্রম পরিচালনার জন্য ছয়টি টিম গঠন করা হয়েছে।
তিনি বলেন, আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট জাহাঙ্গীর কবিরের নেতৃত্বে কুড়িগ্রাম, গাইবান্ধা, সভাপতিমন্ডলীর সদস্য মোহাম্মদ নাসিমের নেতৃত্বে সিরাজগঞ্জ, বগুড়া, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল আলম হানিফের নেতৃত্ব সিলেট, সুনামগঞ্জ ও হবিগঞ্জ, সভাপতিমন্ডলীর সদস্য ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেনের নেতৃত্বে চট্টগ্রাম, বান্দরবান, রাঙ্গামাটি ও খাগড়াছড়ি, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক ডা. দীপুমনির নেতৃত্বে মুন্সিগঞ্জ ও চাদপুর এবং সভাপতিমন্ডলীর সদস্য ড. আব্দুর রাজ্জাকের নেতৃত্বে মানিকগঞ্জ, টাঙ্গাইল ও জামালপুরে ত্রাণ কার্যক্রম পরিচালনা করা হবে।
কাদের বলেন, আজও আওয়ামী লীগের তিনটি প্রতিনিধিদল বন্যায় পানিবন্দি মানুষের মধ্যে ত্রান বিতরণ কার্যক্রম পরিচালনা করছে। টাঙ্গাইলে দলের সাংগঠনিক সম্পাদক একেএম এনামুল হক শামীম, কুড়িগ্রাম ও লালমনিরহাটে এডভোকেট জাহাঙ্গীর কবির নানক ও সাংগঠনিক সম্পাদক বিএম মোজাম্মেল হকের নেতৃত্বে গাইবান্ধায় ত্রান বিতরণ কার্যক্রম পরিচালিত হচ্ছে।
তিনি আরো বলেন, সরকারী ত্রাণ বিতরণ কার্যক্রমের সঙ্গে আওয়ামী লীগের ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ উপ-কমিটি কাজ করে যাচ্ছে। বন্যা পরবর্তী সময়েও বন্যা দুর্গতদের পুনর্বাসনে দলের কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে।
আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক কাদের বলেন, শোকের মাস আগস্ট মাসব্যাপী কর্মসূচী গ্রহনের বিষয়ে বিস্তারিত আলোচনা করা হয়েছে। আওয়ামী লীগের পাশাপাশি সহযোগি সংগঠনের কর্মসূচীর বিষয়েও দিন তারিখ নির্ধারণ করা হয়েছে।
এর আগে ওবায়দুল কাদেরের সভাপতিত্বে এক যৌথসভা অনুষ্ঠিত হয়। (বাসস)

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *