রক্তমদ

রক্তমদ

দালান জাহান

এইযে নদী
তার কোন দুঃখ নেই , সে বয়ে যায়
রহস্যময় নারীর অমীমাংসিত ইতিহাস
নিজেকে সমর্পণে আবাহমান গেয়ে যায়
দুধের মতো সাদা মথুর-মানুষের গান ।

এইযে মহাবিদ্যান
বছরের কোন উজ্জ্বল দিনে
মহাবিদ্যার গঙ্গাস্নানে যায় মহারথীরা
নিজেদের শব্দ-শূন্যতায় গুছিয়ে রাখে
পবিত্র-পৃথিবীর আহরিত-আলো ।

এইযে সূর্য
আগুন অভিমানে কোটি কোটি বছর ধরে জ্বলছে তো জ্বলছেই
তাকেও দর্পের সাথে অস্বীকার করে
অসভ্য-অন্ধকার ।

অথচ মানসিক মদির তারা
তারা কেউ কারো জন্য কাঁদে না
তারা কেউ কারো জন্য বাঁচে না , মরে না
সভ্যতার স্পর্ধায় বলি হয় সভ্যতা
রক্তমদে রঞ্জিত হয়
দাঁতালো দানুষের দানবিক-মুখ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *