সায়েন্স ল্যাবরেটরির ঘটনা বড় হামলার টেস্ট কেস হতে পারে : ওবায়দুল কাদের

বিডি নিউজ আই, ঢাকা : আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, রাজধানীর সায়েন্স ল্যাবরেটরি এলাকায় পুলিশের ওপর বোমা হামলার ঘটনা বড় কোনও হামলার টেস্ট কেস হতে পারে।
তিনি বলেন, ‘এরা ছোটখাট ঘটনা দিয়ে বড় ধরনের হামলার টেস্ট কেস ঘটাতে পারে। পুলিশের ওপর তিন চারটি হামলার সিস্টেমকে পরবর্তীতে বড় ধরনের হামলার ঘটনার টেস্ট কেস হিসেবে নিতে পারে। তবে পুলিশ ও গোয়েন্দাদের তৎপরতা বেড়েছে।’
ওবায়দুল কাদের আজ রোববার সচিবালয়ে সড়ক পরিবহন মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে সমসাময়িক বিষয় নিয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেন।
আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, গোয়েন্দাদের কাছ থেকে জানা গেছে, এটি একটি রিমোর্ট কন্ট্রোল হামলা। বিষয়টি গোয়েন্দারা দেখছেন, তদন্ত চলছে। পুলিশের তৎপরতাও বেড়েছে। এটি টেস্ট কেস হতে পারে। আর আমাদের দেশে জঙ্গিরা হলি আর্টিজান, শোলাকিয়ায় হামলার পর আরো কিছু বিদেশির ওপর হামলা হয়েছে।
দেশে জঙ্গি আছে কিনা, সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘অবশ্যই জঙ্গি আছে। তবে তারা দুর্বল হয়েছে, নির্মূল হয়েছে এ কথা তো আমরা বলিনি। জঙ্গি সমস্যা শুধু বাংলাদেশের নয়, এটি একটি বৈশ্বিক সমস্যা।’
‘বোমা হামলার ঘটনার আইএস দায় শিকার করেছে’ এ বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, আইএস আছে কিনা বা এগুলো আইএসের নাম দিয়ে অপপ্রচার কিনা, তা দেখা দরকার। চূড়ান্ত প্রতিবেদন না পেলে এ বিষয়ে কিছু বলা যাবে না। কারা এ ধরনের হামলা চালাচ্ছে তাদের খুঁজে বের করার চেষ্টা চলছে। জঙ্গি চক্রটি কথিত ইসলামিক স্টেট, আইএসের নাম ব্যবহার করছে কি না তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে।
সায়েন্স ল্যাবের হামলায় স্থানীয় সরকারমন্ত্রী টার্গেট ছিলেন কিনা, সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে ওবায়দুল কাদের বলেন, পুলিশ ও গোয়েন্দা সংস্থার সদস্যরা আমাকে জানিয়েছেন কালকের (শনিবারের) ঘটনায় মন্ত্রী টার্গেট ছিলেন না। জঙ্গিরা এর আগেও পুলিশের ওপর হামলা চালিয়েছিল। তাদের হামলার টার্গেট মন্ত্রী ছিল না।
সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী বলেন, এর আগে মালিবাগ, গুলিস্থান, খেজুরবাগানে একই ধরনের ঘটনা ঘটেছে। জঙ্গি দমনে আমাদের পুলিশ এবং গোয়েন্দাদের ট্র্যাক রেকর্ড কিন্তু ভালো।
তিনি বলেন, আমাদের গোয়েন্দারা জঙ্গি দমন ও নিয়ন্ত্রণে যথেষ্ট সফলতার পরিচয় দিয়েছে, আশা করি এ বিষয়টি তারা অচিরেই তদন্ত করে বের করতে সক্ষম হবেন। এখন আইএসের নামে অপপ্রচার চলছে, সেটা ভেবে দেখার বিষয় আছে। বিষয়টি নিশ্চিত না হয়ে কিছু বলছি না।
আসামে চলমান পরিস্থিতি নিয়ে কাদের বলেন, নাগরিকত্ব বিষয়টি ভারতের অভ্যন্তরীণ ব্যাপার। এ বিষয়ে কোনো মন্তব্য করা ঠিক হবে না। বাংলাদেশকে নিয়ে দেশি-বিদেশি ষড়যন্ত্র চলছে। এ ব্যাপারে সরকার সতর্ক আছে।
আওয়ামী লীগের কাউন্সিল নিয়ে তিনি বলেন, আমাদের জাতীয় সম্মেলন অক্টোবরেই হওয়ার কথা। নিয়মানুযায়ী তিন বছরে ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন। অক্টোবরে এখনও ঠিক আছে। আমরা তো পরিবর্তন করিনি। পরিবর্তন করলে ওয়ার্কিং কমিটির মিটিং ডেকে তা করার বিষয় আসবে। সে বিষয়ে এখনও কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি। হবে না এ মুহূর্তে বলা যাবে না। আমরা এক মাসের নোটিশ দিয়েও জাতীয় সম্মেলন অতীতে করেছি। তবে আমাদের প্রস্তুতি চলছে।
আজকে বিএনপির প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী, এত বছরে বিএনপিকে কীভাবে মূল্যায়ন করবেন- সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে কাদের বলেন, প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে তাদের শুভ কামনা করি। তারা নেতিবাচক রাজনীতি পরিহার করে ইতিবাচক রাজনীতিকে আলিঙ্গন করবেন এটাই আমাদের প্রত্যাশা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *