হুয়াওয়ের পণ্য ব্যবহার অব্যাহত রাখার ঘোষণা মাহাথির মোহাম্মদের

মালয়েশিয়া যতোটা সম্ভব হুয়াওয়ের পণ্য ব্যবহার অব্যাহত রাখবে। চীনা এ কোম্পানীর ওপর মার্কিন নিষেধাজ্ঞা এবং নিরাপত্তা নিয়ে বিশ্ব ধারণার বিরুদ্ধে দাঁড়িয়েই দেশটির প্রধানমন্ত্রী মাহাথির মোহাম্মদ বৃহস্পতিবার এ ঘোষণা দেন।
টোকিওতে এক সম্মেলনে মাহাথির এ ঘোষণাকালে নিরাপত্তা নিয়ে উদ্বেগের কথা স্বীকার করেন। তবে, একই সঙ্গে তিনি বলেন, হুয়াওয়ের পণ্য ব্যবহার থেকে মালয়েশিয়াকে বিরত রাখা যাবে না।
ফিউচার অব এশিয়া ফোরামে ৯৩ বছর বয়সী ওই নেতা আরো বলেন, ‘হ্যাঁ কিছু গোয়েন্দাগিরি হতে পারে। কিন্তু মালয়েশিয়ায় গোয়েন্দাগিরি করার কি আছে? কারণ, আমরা একটি খোলা বই।’
তিনি বলেন, মালয়েশিয়ার চেয়ে হুয়াওয়ের গবেষণা সক্ষমতা অনেক বেশি। সুতরাং আমরা যতোটুকু সম্ভব তাদের প্রযুক্তি ব্যবহারের চেষ্টা করবো।
মাহাথির বলেন, সকলেই জানে যদি কোন দেশ মালয়েশিয়ার দিকে হাত বাড়াতে চায় তবে তাকে অনেক দূর পাড়ি দিতে হবে। আমরা বাধা দেবো না। কারণ, এটি সময়ের অপচয়।
চীনের বৃহৎ টেলিকম কোম্পানী হুয়াওয়ের বিরুদ্ধে গোপন নজরদারীসহ নানা বিতর্ক এবং যুক্তরাষ্ট্র এর বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা জারি করার প্রেক্ষাপটে মাহাথির এ কথা বলেন।
মার্কিন নিষেধাজ্ঞার পর পর কিছু দেশ বৈধতার দোহাই দিয়ে হুয়াওয়ের কার্যক্রম বন্ধ করে দিয়েছে।
মাহাথির পাল্টাপাল্টি এই ঘৃণার বিষয়ে সতর্ক করে বলেন, আমেরিকা ও পশ্চিমাদের অবশ্যই মানতে হবে বর্তমানে এশীয় দেশগুলো প্রতিযোগিতামূলক পণ্য তৈরি করতে পারে। এজন্যে ব্যবসায়িক প্রতিদ্বন্দ্বীদের হুমকি দেয়া ঠিক নয়।
তিনি বলেন, আমি বুঝতে পারছি আমেরিকার প্রযুক্তির চেয়ে হুয়াওয়ে ব্যাপক এগিয়ে গেছে। কিন্তু আমেরিকার উচিত চীনের সাথে প্রতিযোগিতা করা।
তিনি আরো সতর্ক করেন, চীন মার্কিন উত্তেজনা দক্ষিণ চীন সাগরের ওপর প্রভাব ফেলবে।
তিনি ওই এলাকায় শান্ত থাকার আহ্বান জানিয়ে বলেন, ছোট ছোট ঘটনা সহজেই বড়ো ধরণের সংঘাতে রূপ নিতে পারে।
দক্ষিণ চীন সাগরে চীন তাদের সার্বভৌমত্ব দাবি করে আসছে। একইসঙ্গে আঞ্চলিক অন্য দেশগুলোও সেখানে তাদের মালিকানার দাবিতে অটল।(বাসস)

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *