কথিত বন্দুকযুদ্ধে এক ব্যক্তি নিহত হয়েছেন

নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলায় কথিত বন্দুকযুদ্ধে এক ব্যক্তি নিহত হয়েছেন বলে দাবি করেছে র‍্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‍্যাব)। আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর দাবি, নিহত ব্যক্তি একজন মাদক ব্যবসায়ী।

রোববার ভোরে উপজেলার শহীদ নগরের কড়ইতলা এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

র‍্যাব ১১-এর জ্যেষ্ঠ অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আলেপ উদ্দিন দাবি করেন, নিহত হাসান নগরীর দেওভোগ এলাকার শীর্ষ মাদক ব্যবসায়ী। সিদ্ধিরগঞ্জ ও ফতুল্লা থানায় তিনটি হত্যাসহ প্রায় ২০টি মামলা রায়েছে তাঁর বিরুদ্ধে। আড়াই মাস আগে হাসানকে গ্রেপ্তারের জন্য অভিযান চালিয়েছিল আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী। সে সময় সন্ত্রাসীদের গুলিতে এক র‍্যাব সদস্য আহত হয়েছিলেন।

‘বন্দুকযুদ্ধের’ ব্যাপারে র‍্যাব কর্মকর্তার ভাষ্য, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে আজ ভোর ৪টার দিকে শহীদ নগরের কড়ইতলা এলাকায় নির্মাণাধীন একটি চারতলা ভবনে অভিযান চালায় র‍্যাব। সেই সময় দোতলার ছাদে কয়েকজন ইয়াবা সেবন করছিল।

‘র‍্যাবের উপস্থিতি টের পেয়ে সন্ত্রাসীরা কয়েকটি গুলি করে। আত্মরক্ষার জন্য র‍্যাবও পাল্টা গুলি চালায়। কিছুক্ষণ গোলাগুলির পর সন্ত্রাসীরা পালিয়ে যায়। তখন সেখান থেকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় একজনকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিলে গেলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।’

জ্যেষ্ঠ অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আরো দাবি করেন, পরে হাসানের পরিচয় শনাক্ত করা হয়। এ সময় র‍্যাব সদস্য কনস্টেবল আলম ও সৈনিক মাসুম আহত হন। তাদের হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। ঘটনাস্থল থেকে চারটি গুলিসহ একটি বিদেশি পিস্তল ও আড়াইহাজার ইয়াবা উদ্ধার করা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *